সাকিব আল হাসান-মাশরাফি বিন মুর্তজা-মুশফিকুর রহিম-মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের পরিবার। ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বকাপে কোন কোন ক্রিকেটারের পরিবার থাকছে ইংল্যান্ডে?

সাকিব আল হাসানের পরিবার আয়ারল্যান্ড সফর থেকেই দলের সঙ্গে অবস্থান করছে।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০১ জুন ২০১৯, ১১:৩৩ আপডেট: ০১ জুন ২০১৯, ১১:৩৩
প্রকাশিত: ০১ জুন ২০১৯, ১১:৩৩ আপডেট: ০১ জুন ২০১৯, ১১:৩৩


সাকিব আল হাসান-মাশরাফি বিন মুর্তজা-মুশফিকুর রহিম-মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের পরিবার। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ত্রিদেশীয় সিরিজ ও বিশ্বকাপ; দুই আসর মিলে প্রায় ৭৪ দিন গ্রেট বিটেনে অবস্থান করতে হবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে। যা হতে যাচ্ছে দেশের ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম দীর্ঘ সফর।

লম্বা সফরে পরিবার ছেড়ে থাকা আদতেই কঠিন। হোম সিকনেস বা গৃহ কাতরতায় যারা ভোগেন বিশ্বকাপে তাদের পারফরম্যান্সে বিষয়টি নেতিবাচক প্রভাবও ফেলতে পারে। একই সঙ্গে সৃষ্টি করতে পারে মানসিক চাপও। তাই বৈশ্বিক আসরে পরিবার নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

সে হিসেবে সব ক্রিকেটারেরই সুযোগ ছিল পরিবার নিয়ে যাওয়ার। তবে বিশ্বকাপে কেবল চার ক্রিকেটারের পরিবার থাকছেন ইংল্যান্ডে। এরা হলেন - সাকিব আল হাসান, মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিমমাহমুদউল্লাহ রিয়াদ

এদের মধ্যে আয়ারল্যান্ড সফর থেকেই বাংলাদেশ দলের সঙ্গে রয়েছে সাকিব-পত্নী উম্মে আহমেদ শিশির ও তার কন্যা আলায়না হাসান অউব্রি। দুদিন আগে ইংল্যান্ড পৌঁছেছেন দুই বোন অর্থ্যাৎ মাহমুদউল্লাহ-পত্নী মিষ্টি জান্নাতুল কাউসার মিষ্টি ও মুশফিক-পত্নী জান্নাতুল কিফায়াত মন্ডি। সঙ্গে রয়েছে তাদের সন্তানরাও।

২ জুন, রবিবার উড়ে যাবেন অধিনায়ক মাশরাফির স্ত্রী সুমনা হক সুমি। শেষ বিশ্বকাপ বলেই কিনা শুধু স্ত্রী আর দুই সন্তান নয়, বাংলাদেশ অধিনায়কের বাবা এবং ভাইও যাচ্ছেন ইংল্যান্ডে।

বাকিদের অবশ্য পরিবার ছাড়াই কাটবে বিশ্বকাপ। এমনিতে কোনো সফরেই পরিবারকে সঙ্গে রাখেন না তামিম ইকবাল। পরিবারের উপস্থিতি তার মনোসংযোগে বিঘ্ন ঘটাতে পারে, তাই টেলিফোন কিংবা স্কাইপেতেই স্ত্রী-পুত্রের সঙ্গে প্রাত্যহিক যোগাযোগ রাখেন বাঁহাতি এ ওপেনার। এই তালিকায় রয়েছেন রুবেল হোসেনও।

এদিকে বিশ্বকাপের আগে যেন বিয়ের হিড়িক লেগেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেটে। তবে মজার ব্যাপার, সদ্য বিয়ের পিঁড়িতে বসা মুস্তাফিজুর রহমান, সাব্বির রহমান ও মেহেদী হাসান মিরাজদের কারোরই স্ত্রী বা পরিবার যাচ্ছে না ইংল্যান্ডে।

প্রিয় খেলা/রুহুল