৩ কোটি ২৮ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ডিআইজি মিজান, তার স্ত্রী, ভাই ও ভাগ্নের নামে মামলা করে দুদক।

ডিআইজি মিজানের পলায়ন ঠেকাতে সীমান্তে সতর্কতা জারি

সোমবার বেলা ১১টার দিকে হিলি ইমিগ্রেশন পুলিশ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা সীমান্তে ও চেকপোস্ট এলাকায় নজরদারী বাড়িয়েছে।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০১৯, ১৯:০০ আপডেট: ২৪ জুন ২০১৯, ১৯:০০
প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০১৯, ১৯:০০ আপডেট: ২৪ জুন ২০১৯, ১৯:০০


৩ কোটি ২৮ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ডিআইজি মিজান, তার স্ত্রী, ভাই ও ভাগ্নের নামে মামলা করে দুদক।

(ইউএনবি) ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল (ডিআইজি) মিজানুর রহমান মিজান, তার স্ত্রী, ভাই ও ভাগ্নের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার পর হিলি চেকপোস্ট ও সীমান্তে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত নির্দেশনা পাওয়ার পর ২৪ জুন, সোমবার বেলা ১১টার দিকে হিলি ইমিগ্রেশন পুলিশ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা সীমান্তে ও চেকপোস্ট এলাকায় নজরদারী বাড়িয়েছে। সোমবার ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন মামলা করার পর এই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

৩ কোটি ২৮ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ডিআইজি মিজান, তার স্ত্রী, ভাই ও ভাগ্নের নামে মামলা করে দুদক।

বিকেল ৪টার দিকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফিরোজ কবীর বলেন, ‘এই পথ ব্যবহার করে ডিআইজি মিজান যাতে কোনোভাবেই ভারতে পালাতে না পারেন সেজন্য হেডকোয়ার্টার থেকে দিনাজপুর পুলিশ সুপারের মাধ্যমে একটি নির্দেশনা পেয়েছি। এর পরপরেই তার নাম কালো তালিকাভুক্ত করে ব্লক করে দেওয়া হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘যেসব পাসপোর্টধারী যাত্রী বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাচ্ছেন, তাদের ছবি, নাম-ঠিকানা তথ্য-প্রযুক্তির মাধ্যমে সতর্কতার সাথে যাচাই-বাছাই করে ক্লিয়ারেন্স দেওয়া হচ্ছে। আবার ভারত থেকে দেশে আসার পথে একইভাবে দেখা হচ্ছে।’

ইমিগ্রেশন কার্যালয়ে থাকা পূর্বের গ্রেফতারি পরোয়ানার তালিকা দেখেও যাত্রীদের ছবি, নাম-ঠিকানা মেলানো হচ্ছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

বিজিবির হিলি সিপি ক্যাম্পের সুবেদার চাঁন মিয়া বলেন, ‘বিজিবি স্বাভাবিকভাবেই সবসময় সীমান্তে কড়া নজরদারির মাধ্যমে দায়িত্ব পালন করে। তবে ডিআইজি মিজানের বিষয়টা জানার পর সতর্ক আছি।’

এ ছাড়া সিসি ক্যামেরার মাধ্যমেও সীমান্তে চলাচলকারী লোকজনের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল/রিমন

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...