ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে ৮৭ বছরের চারুলতা প্যাটেল। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচের গ্যালারিতে ৮৭ বছরের চারুলতা, দেখুন ভিডিওতে

খেলা চলাকালীন টিভি ক্যামেরার ফোকাস তার উপর পড়তেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে শুরু হয়ে যায় চর্চা।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৩ জুলাই ২০১৯, ১০:৩৭ আপডেট: ০৩ জুলাই ২০১৯, ১০:৩৭
প্রকাশিত: ০৩ জুলাই ২০১৯, ১০:৩৭ আপডেট: ০৩ জুলাই ২০১৯, ১০:৩৭


ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে ৮৭ বছরের চারুলতা প্যাটেল। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বার্মিংহামের এজবাস্টনের ২২ গজে যখন তুমুল লড়াইয়ে মত্ত মাশরাফি বিন মুর্তজা-সাকিব আল হাসান-বিরাট কোহলি-মহেন্দ্র সিং ধোনিরা, তখন আলো কেড়ে নেন অদূরে গ্যালারিতে থাকা চারুলতা প্যাটেল।

৮৭ বছরের ওই সমর্থক ভারতের ব্যাটিংয়ের সময় বাঁশি বাজিয়ে গ্যালারি মাতিয়ে রেখেছিলেন। খেলা চলাকালীন টিভি ক্যামেরার ফোকাস তার উপর পড়তেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে শুরু হয়ে যায় চর্চা। ধারাভাষ্যকার থেকে সাধারণ সমর্থকরা বয়স্ক ওই নারী সমর্থকের প্যাশন দেখে অভিভূত হন।

এজবাস্টনের গ্যালারিতে কোহলিদের উৎসাহ দিতে বাঁশি হাতে হাজির ছিলেন ৮৭ বছরের এই ভারতীয় সমর্থক। ম্যাচের পর এই বয়স্ক নারী ফ্যানের সঙ্গে ছবি তোলেন কোহলি-রোহিতরা। ম্যাচের পর কোহলি ও রোহিতকে কাছে পেয়ে আপ্লুত হন চারুলতাও। বলে উঠেন, ‘এটা আমার দল। এরা আমার বাচ্চার মতো।’

১৯৮৩ সালে ভারত যেবার কপিল দেবের অধীনে বিশ্বকাপ জিতেছিল, সেবারও গ্যালারিতে থেকে দলকে সমর্থন জানিয়েছিলেন চারুলতা। এ নিয়ে ৮৭ বছরের বৃদ্ধার ভাষ্য, ‘১৯৮৩ সালে কপিল পাজি যখন বিশ্বকাপ জিতেছিলেন, তখনও আমি মাঠে ছিলাম। আমি নিশ্চিত, এবারও ভারত বিশ্বকাপ জিতবে। ভারতের জয়ের জন্য আমি গণেশের কাছে প্রার্থনা করছি। সবসময় ভারতীয় দলকে আমি আশীর্বাদ করি।’

চারুলতার সঙ্গে তোলা ছবি নিজের টুইটারে অ্যাকাউন্টেও পোস্ট করেছিলেন কোহলি। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘সমস্ত ভক্তদের ভালোবাসা ও সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। বিশেষ করে চারুলতা প্যাটেলজিকে। ৮৭ বছর বয়সেও এতো প্যাশন ও ক্রিকেটঅন্ত প্রাণ এই নারী ভক্তকে আমি প্রথমবার দেখলাম। এ থেকে প্রমাণিত বয়স কেবলমাত্র একটা সংখ্যা। প্যাশন কোনো কিছুর বাঁধ মানে না।’

প্রিয় খেলা/আশরাফ