বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। ছবি: সংগৃহীত

কোহলির পর আনুশকাকেও আনফলো করেছেন রোহিত!

কোহলি ও রোহিতের স্ত্রীর মধ্যেও নীরব দ্বন্দ্ব চলছে। বিশ্বকাপের মধ্যেই প্রকাশ্যে আসে এমন খবর।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৫ জুলাই ২০১৯, ২২:১৫ আপডেট: ২৫ জুলাই ২০১৯, ২২:১৫
প্রকাশিত: ২৫ জুলাই ২০১৯, ২২:১৫ আপডেট: ২৫ জুলাই ২০১৯, ২২:১৫


বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের শুরু থেকে আলোচনায় ছিল ভারতের নাম। রীতিমতো ফেভারিট তকমা নিয়েই বিশ্বকাপের এবারের আসরের অংশ নিয়েছিল দলটি। মাঠের পারফরম্যান্সেও দেখা যাচ্ছিল সেই ছাপ। লিগ পর্বের মাত্র একটি ম্যাচ ছাড়া বাকি সবগুলোতেই জয়ের স্বাদ নিয়ে সেমিফাইনালে পা রাখে বিরাট কোহলির দল।

ধোনি-কোহলিদের এমন দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ভক্ত-সমর্থকরা ধরেই নিয়েছিলেন বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠছে ভারত। কিন্তু বিধি বাম! বিশ্বকাপের শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলতে থাকা ভারতকে সেমিফাইনালে যেন খুঁজেই পাওয়া যায়নি। বিশ্বসেরা ব্যাটিং লাইনআপ নিয়েও নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ২৪০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে পারেনি ভারত। বরং ২৪০ রানের ওই লক্ষ্যটাকেও রীতিমতো কঠিন বানিয়ে ফেলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা।

২৪০ রান তাড়া করতে নেমে তিন বল বাকি থাকতে ২২১ রানে গুটিয়ে যায় ভারতের ইনিংস। ১৮ রানের পরাজয় সঙ্গী করে সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নেয় রবি শাস্ত্রীর শিষ্যরা। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হারের রেশ কাটতে না কাটতেই শোনা যায় ভারতের ড্রেসিংরুমে ভাঙনের গুঞ্জন। সেই গুঞ্জন আরও উসকে দেন রোহিত শর্মা। দলের বাকি ক্রিকেটারদের রেখে একা দেশে ফেরেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। সেটাও অনেকটা নিরবে-নিভৃতে।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, কোহলির পর আনুশকাকেও আনফলো করে দেওয়ার পেছনে রয়েছে ড্রেসিংরুমের বিভক্তি। এর এক ভাগের নেতৃত্বে রয়েছেন কোহলি। অপর অংশকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন রোহিত। তবে কোহলি-রোহিতের মনোমালিন্য শুরু আরও আগে থেকেই।

এরই মধ্যে জানা যায়, কোহলি ও রোহিতের স্ত্রীর মধ্যেও নীরব দ্বন্দ্ব চলছে। বিশ্বকাপের মধ্যেই প্রকাশ্যে আসে এমন খবর। আর তাতেই মূলত ফাটল ধরেছে কোহলি ও রোহিতের সম্পর্কে। এর জেরেই কোহলির পর আনুশকাকেও আনফলো করে দিয়েছেন রোহিত শর্মা।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হারের পর জানা যায়, দল নির্বাচনে নেতিবাচক প্রভাব খাটান কোহলি। যেটা মোটেই সহ্য হয় না রোহিতের। তবে এ নিয়ে মুখ খোলেননি কেউই। এমনকি বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়াও (বিসিসিআই) কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

বিসিসিআই বলছে, কোনো খেলোয়াড়ের মধ্যে কিছু হলে তারা বোর্ডের সঙ্গে কথা বলতে পারে। তবে এখন পর্যন্ত তারা এমন কোনো খবর পাননি।

প্রিয় খেলা/রুহুল