‘শেয়ার করেও জিতুন’ ৮ম পর্ব: পুরস্কার পেলেন ২৬ জন

মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ প্রতিযোগিতার ‘শেয়ার  করেও জিতুন’ পর্বের ৮ম আসরে পুরস্কার জিতেছেন ২৬ জন। ২৬ জানুয়ারি, মঙ্গলবার মুজিব কুইজের আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানানো হয়। অনুষ্ঠানটি লাইভ হয় প্রিয়.কমের ফেসবুক ও ইউটিউব চ্যানেলে।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:৪৯ আপডেট: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫:৫৪
প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:৪৯ আপডেট: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫:৫৪

মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কুইজ’ প্রতিযোগিতার ‘শেয়ার  করেও জিতুন’ পর্বের ৮ম আসরে পুরস্কার জিতেছেন ২৬ জন।

২৬ জানুয়ারি, মঙ্গলবার মুজিব কুইজের আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানানো হয়। অনুষ্ঠানটি লাইভ হয় প্রিয়.কমের ফেসবুক ও ইউটিউব চ্যানেলে।

অনুষ্ঠানে প্রিয়.কমের সিইও জাকারিয়া স্বপন জানান,  এই ২৬ জনের ভেতর থেকে ১০ জনকে নির্বাচিত করা হয় পারফরমেন্সের উপর ভিত্তি করে। বাকি ১৬ জনকে নির্বাচিত করা হয় কম্পিউটারে লটারির মাধ্যমে।

পারফরমেন্সের উপর ভিত্তি করে জয়ী ১০ জন হলেন- সৌরভ শিল, ইমরান হোসেন, সাদিয়া ইসলাম, রাহুল রায়, আমিনুল ইসলাম, রাকিবুল ইসলাম, সীমান্ত বিশ্বাস, তুষার ইমরান, আকিব হাসান ও রুবেল ইসলাম।

‘শেয়ার  করেও জিতুন’ পর্বের ৮ম আসরে ৪২ হাজার ৯৮০ জন প্রতিযোগী ৫৫ হাজার ১৫০ বার মুজিব কুইজ সংক্রান্ত কনটেন্ট শেয়ার করার মাধ্যমে এই পর্বে অংশগ্রহণ করেন। এদের মধ্য থেকে ১৬ জনকে বিজয়ী করা হয়। তারা হলেন- মেহেরপুর থেকে শাওন আহমেদ, গাইবান্ধা থেকে আহসান হাবিব, ফরিদপুর থেকে ইশিতা ইসলাম রুপা, জয়পুরহাট থেকে মাইনুল হাসান, লক্ষ্মীপুর থেকে গোলাম রাব্বানী সামিম, সিলেট থেকে সম্রাট শরিফ, কুমিল্লা থেকে নাহিদ হাসান সৌরভ, লালমনিরহাট থেকে হালিম উদ্দিন, ঢাকার ওয়ারি থেকে সেলিম আহমেদ, চট্টগ্রাম থেকে ওহিদুল আলম, নড়াইল থেকে আসমাউল বিশ্বাস, পটুয়াখালী থেকে অন্তরা দে, নারায়ণগঞ্জ থেকে নিসার হোসেইন, ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট থেকে আনোয়ার হোসাইন, চট্টগ্রাম থেকে ওমর ফারুক ও লালমনিরহাট থেকে মাহবুব আলম। বিজয়ী প্রত্যকে একটি করে স্মার্টফোন পাবেন।

এদিকে এবারের পর্বে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুইজে অংশ নিয়ে পুরস্কার না জিততে পারাদের কয়েকজন। এরা হলেন- পুরান ঢাকা থেকে আয়ান আহমেদ, ঢাকা থেকে ওহিদুল ইসলাম এবং চট্টগ্রাম থেকে শরিফ উদ্দিন। এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে কুইজের বিভিন্ন বিষয়ে নিজের মতামত ব্যক্ত করেন কুড়িগ্রামের শিক্ষার্থী  ফারিহা হুমায়রা।

এদের মধ্যে ওহিদুল ইসলাম মুজিব কুইজ সংক্রান্ত গান গেয়ে শোনান এবং শরিফ উদ্দিন নিজের লেখা কবিতা আবৃতি করেন।

অনুষ্ঠানে প্রিয়.কমের সিইও  জাকারিয়া স্বপন জানান, পরের সপ্তাহ থেকে ‘শেয়ার করেও জিতুন’ পর্বে ১৪ জনকে পুরস্কার দেওয়া হবে। এদের মধ্যে সাতজন পাবেন ‘শেয়ার করেও জিতুন’ পর্বে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে পুরস্কার। কম্পিউটারাইজড পদ্ধতিতে লটারির মাধ্যমে তাদের নির্বাচিত করা হবে। আর পারফরমেন্সের উপর ভিত্তি করে বাকি ৭ জনকে নির্ধারণ করা হবে। তাদেরকে নির্বাচিত করবেন এডিটরিয়াল প্যানেল।

প্রসঙ্গত, প্রতিদিনের কুইজের বিজয়ীর পাশাপাশি কুইজটি যারা ফেসবুকে শেয়ার (https://quiz.priyo.com/share-n-win/) করছেন, তাদেরকে নিয়ে প্রতি সপ্তাহের শেষে লটারি করে ৭ জন বিজয়ী নির্বাচিত করা হয়। যারা প্রতিদিনের কুইজ বা কুইজ সংশ্লিষ্ট যেকোনো কিছু ফেসবুকে শেয়ার করবেন, তাদেরকে নিয়েই সপ্তাহ শেষে এ লটারি হয়। বিজয়ীদের জন্য প্রতি সপ্তাহেই থাকে বিভিন্ন ধরনের আকর্ষণীয় উপহার।

কুইজে অংশ নিতে https://mujib100.gov.bd অথবা https://quiz.priyo.com ওয়েবসাইট অথবা প্রিয় অ্যাপ (ডাউনলোড লিংক https://dl.priyo.com) এর যেকোনো একটি মাধ্যমে নিবন্ধন করে অংশ নিতে হবে। একজন প্রতিযোগী একটি আইডি দিয়ে প্রতিটি কুইজে একবার অংশগ্রহণ করতে পারবেন। প্রত্যেক প্রতিযোগীকে নাম, ঠিকানা, ছবি, ফোন নাম্বার, ইমেইল/সোশ্যাল মিডিয়া আইডি ব্যবহার করতে হবে, যা বিজয়ীদের ক্ষেত্রে তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র অথবা জন্মনিবন্ধন সনদের সঙ্গে যাচাই করা হবে। একজন প্রতিযোগীকে একবার নিবন্ধন করলেই চলবে। পূর্বে নিবন্ধন করে থাকলে নতুন করে নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই। ভুল তথ্য দিয়ে অংশগ্রহণ করলে তাকে পরবর্তীতে অযোগ্য বিবেচনা করা হবে।

প্রতিযোগিতায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মের উপর এমসিকিউ পদ্ধতিতে প্রশ্ন থাকছে। প্রতিদিন একটি নতুন কুইজ দেওয়া হয় এবং কুইজের মেয়াদ ২৪ ঘণ্টা (০০:০১ মিনিট হতে ২৩:৫৯ মিনিট পর্যন্ত)। প্রতিদিন সঠিক উত্তরদাতাদের মধ্যে থেকে লটারির মাধ্যমে ১০০ জন বিজয়ীর সবাই পাবেন ১০০ জিবি করে মোবাইল ডাটা এবং তাদের মধ্যে প্রথম ৫ জন পাবেন স্মার্টফোন।

এ ছাড়া পুরো প্রতিযোগিতায় গ্রান্ড প্রাইজ হিসেবে থাকবে মোট ১০০টি ল্যাপটপ। বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় এ অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্‌যাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি। সহায়তা করছে- শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন।

কুইজটির স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার- তথ্য মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। আর এটির বাস্তবায়ন সহযোগী প্রিয়.কম। এছাড়াও এ আয়োজনে সার্বিকভাবে আছে দারাজ বাংলাদেশ, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইউনাইটেড গ্রুপ ও টেলিটক বাংলাদেশ।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...