পদ্মা সেতুর আদলেই নির্মিত হচ্ছে মেলা প্রধান প্রবেশদ্বার। ছবি: শামীম আহমেদ

পদ্মাসেতু দিয়ে ঢুকতে হবে বাণিজ্য মেলায়!

মেলার মাঠে বিভিন্ন কোম্পানির পক্ষ থেকে প্যাভিলিয়ন ও স্টল নির্মাণের কাজও প্রায় শেষ পর্যায়ে- মূল প্যাভিলিয়ন নির্মাণ শেষে এখন সৌন্দর্য বর্ধন ও পলিশের কাজে সময় দিচ্ছেন কর্মীরা।

আবু আজাদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ২০:৩৯ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২০:০০
প্রকাশিত: ২৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ২০:৩৯ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২০:০০


পদ্মা সেতুর আদলেই নির্মিত হচ্ছে মেলা প্রধান প্রবেশদ্বার। ছবি: শামীম আহমেদ

(প্রিয়.কম) দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশের সাথে উত্তর-পূর্ব অংশের সংযোগ ঘটাতে নির্মিত হচ্ছে পদ্মা বহুমুখী সেতু। কিন্তু সেটা পদ্মা নদীর মাওয়া-জাজিরা পয়েন্টে নির্মিত হচ্ছে, ঢাকায় নয়। কিন্তু রাজধানীতে পদ্মাসেতুর আদলে আরও একটি সেতু নির্মিত হচ্ছে তাহলে সেটা কী?

বেশিরভাগ স্টল ও প্যাভিলিয়ন নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে। ছবি: শামীম আহমেদ

বেশিরভাগ স্টল ও প্যাভিলিয়ন নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে। ছবি: শামীম আহমেদ, প্রিয়.কম 

নতুন বছরের প্রথম দিন থেকে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে শুরু হচ্ছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। প্রতিবারের মতো এবারও বাণিজ্য মেলার আয়োজন আরও আকর্ষণীয় ও নান্দনিক করে তুলতে মেলার প্রবেশদ্বার তৈরিতে থাকছে ভিন্নতা। আর তা হচ্ছে, পদ্মাসেতুর আদলে নির্মিত হচ্ছে এবারের ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার প্রধান ফটক! তারই জন্য তোরজোড় চলছে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের মাঠে।

চলছে সৈন্দর্য বর্ধণের কাজ। ছবি: শামীম আহমেদচলছে সৌন্দর্য বর্ধনের কাজ। ছবি: শামীম আহমেদ, প্রিয়.কম

বাণিজ্য মেলার প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, পদ্মাসেতুর আদলে বাণিজ্য মেলায় প্রবেশের প্রধান ফটক নির্মাণে ব্যস্ত সময় পার করছেন শ্রমিকেরা। দেশের মূল পদ্মাসেতুর মতো এ সেতুটিরও একটি স্প্যান বসানো হয়েছে। শ্রমিকেরা জানান, সেতুটি নির্মাণ করতে গিয়ে বেশ মজাই পাচ্ছেন তারা।

এ ছাড়া মেলার মাঠে বিভিন্ন কোম্পানির পক্ষ থেকে প্যাভিলিয়ন ও স্টল নির্মাণের কাজও প্রায় শেষ পর্যায়ে- মূল প্যাভিলিয়ন নির্মাণ শেষে এখন সৌন্দর্য বর্ধন ও পলিশের কাজে সময় দিচ্ছেন কর্মীরা। তবে কিছু স্টল নির্মাণের কাজ সবে শুরু হয়েছে।

সবাই নিজ স্টলকে দৃষ্টিনন্দন করার প্রতিযোগিতায় নেমেছে। ছবি: শামীম অাহমেদ

সবাই যেন নিজ স্টলকে দৃষ্টিনন্দন করার প্রতিযোগিতায় নেমেছে। ছবি: শামীম অাহমেদ, প্রিয়.কম

প্রসঙ্গত, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও এর অধীনস্ত সংস্থা রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) যৌথভাবে প্রতিবছর এ মেলার আয়োজন করে। আগামী ১ জানুয়ারি শুরু হতে যাচ্ছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার ২৩তম আসর।

ইপিবির তথ্যমতে, এবারের মেলায় স্টল ও প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ৫৪০টি। তবে গত বছর মেলায় অংশ নিয়েছিল ৫৮৪টি প্রতিষ্ঠান। সেই হিসেবে এবার মেলায় স্টল কমছে ৪৪টি। আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, জনগণের চলাচলের সুবিধার্থে এবার স্টলের সংখ্যা কমানো হয়েছে। মাসব্যাপী এবারের মেলায় বাংলাদেশসহ ১৭টি দেশ অংশ নেবে।

বাণিজ্য মেলার প্রস্তুতি দেখতে দর্শনার্থীও আসছেন! ছবি: শামীম আহমেদ

বাণিজ্য মেলার প্রস্তুতি দেখতে দর্শনার্থীও আসছেন। ছবি: শামীম আহমেদ, প্রিয়.কম

প্রতিদিন সকাল ১০টায় শুরু হয়ে মেলা চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত। বড়দের জন্য প্রবেশ ফি ৩০ টাকা আর ছোটদের জন্য ২০ টাকা।

প্রিয় সংবাদ/শান্ত