তাপমাত্রা, আর্দ্রতা এবং শ্বাসতন্ত্রে ভাইরাসের গতিবিধি

ঢাকা টাইমস প্রকাশিত: ০৬ এপ্রিল ২০২০, ১৭:৪৩

শীতকালীন শ্বাসতন্ত্রের সংক্রামক রোগের ইতিহাসে এর প্রাচীনতম তথ্য পাওয়া যায় খ্রিষ্টপূর্ব ৪০০ অব্দে হিপোক্রেটিস লিখিত গ্রিক বই ‘বুক অব এপিডেমিকস’-এ। ২০০২-০৩ সালের সার্স করোনাভাইরাস (SARS Cov) এবং সাম্প্রতিক সার্স করোনাভাইরাস-২ (SARS Cov-2) শীতকালে বিস্তৃতি লাভ করেছে। শ্বাসতন্ত্রের অন্যান্য ভাইরাসের ক্ষেত্রেও দেখা যায়, এদের বিস্তারে ঠান্ডার একটি ভূমিকা রয়েছে, যেটাকে সংক্রমণের ওপর ঋতুর প্রভাব হিসেবে দেখা হয়। ঋতুর এই প্রভাব বেশ কয়েকটি উপাদান দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়, যার মধ্যে রয়েছে তাপমাত্রার পরিবর্তন, পরম আর্দ্রতা (বাতাসে জলীয় বাস্পের পরিমাণ), সূর্যের আলো, ভিটামিন এ-র অবস্থা, এবং ব্যক্তির আচরণ। পরিবেশের উপকরণগুলো ব্যক্তির শ্বাসনালিতে ভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা, ভাইরাসের টিকে থাকা এবং শরীরে বাসা বাঁধার ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রকের ভূমিকা রাখে। আর ব্যক্তির আচরণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করে মানুষ থেকে মানুষে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারটি। ঋতুনির্ভর সংক্রমণ বা সিজনাল ইনফেকশন হলো বছরের কোনো একটি সময়ে একটি রোগের প্রকোপ। এই বিষয়টি বেশি প্রযোজ্য ছিল যখন মানুষ অত্যন্ত কঠিন জলবায়ুতে প্রায় কোনো প্রতিরক্ষা ছাড়াই বসবাস ও কাজকর্ম করত। কিন্তু শিল্পায়নের সাথে সাথে মানুষ প্রকৃতি এবং বাইরের জলবায়ু থেকে অনেকটাই দূরে সরে এসেছে।
সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন