বিসিবি সভাপতির আসলে কী হয়েছে?

জাগো নিউজ ২৪ প্রকাশিত: ০৫ জুলাই ২০২০, ১৪:১৮

করোনা শঙ্কা চারিদিকে। উদ্বেগ-উৎকন্ঠাও প্রচুর। এর ধাক্কা ক্রীড়াঙ্গন-ক্রিকেটাঙ্গনেও। দেশের ক্রিকেটের সব সময়ের সফলতম অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা করোনা আক্রান্ত। তবে কোনো সমস্যা নেই। দিনকে দিন তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটছে। আশা করা যাচ্ছে, এ সপ্তাহের শেষ কিংবা আগামী সপ্তাহের শুরুর দিকে মাশরাফি পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠবেন। দেশর ক্রিকেটের শীর্ষ তারকা মাশরাফি ছাড়া আরও দুই ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব এবং তার পরিবারও করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। জাতীয় দলের সাবেক কৃতি ওপেনার ও ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের বড় ভাই নাফিস ইকবাল, তার মা এবং বাঁ হাতি স্পিনার নাজমুল অপু বাবা-মা'সহ করোনায় দুই সপ্তাহ ভুগে এখন সবাই সুস্থ।

এদিকে গতকাল (শনিবার) দুপুরের পর হঠাৎ গুঞ্জন, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও শারীরিকভাবে অসুস্থ। এখন অসুস্থ শোনা মাত্র সবাই প্রথমে ভাবেন করোনা। বিসিবি প্রধানও করোনা আক্রান্ত কি না? কেউ কেউ প্রথমে তাই মনে করেছিলেন। পরে সবার ভুল ভাঙে। নাহ, বিসিবি সভাপতির সমস্যা অন্য। সেটাও কোনো নতুন সমস্যা নয়। তার প্রোস্টেট (মূত্রাশয় ও মূত্রনালিতে) সমস্যা আছে এবং তিনি বিভিন্ন সময় সিঙ্গাপুর ও ইংল্যান্ডে এর চিকিৎসাও করান। নিয়মিত মেডিক্যাল চেকআপ করাতে বিভিন্ন সময় দেশের বাইরে যান পাপন। এবারও গত জুন মাসের তৃতীয় সপ্তাহে তিনি ইংল্যান্ড গেছেন মেডিক্যাল চেকআপ করাতে। সেখানে বিশেষভাবে তার পুরনো সমস্যার চিকিৎসা করানোর কথা আগে থেকেই ছিল। কিন্তু কাল সন্ধ্যার পর হঠাৎ গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে এবং কারো কারো ধারণা, বিসিবি সভাপতি হঠাৎ গুরুতর অসুস্থ হয়ে ইংল্যান্ডে চিকিৎসাধীন। বিষয়টি মোটেই তা নয়। বিসিবির একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে, কোন গুরুতর সমস্যা নয়, নাজমুল হাসান পাপন সুস্থ আছেন এবং ইংল্যান্ড গিয়ে নিয়ম মেনে দুই সপ্তাহ আইসোলেশনে থাকার পর প্রোস্টেট বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে দেখিয়েছেন।

চিকিৎসকরা তাকে আগামী ৮ জুলাই অপারেশনের তারিখ দিয়েছেন। বিসিবি মুখপাত্র ও মিডিয়া কমিটি চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জাগো নিউজকে এ সম্পর্কে পরিষ্কার তথ্য দিয়ে বলেন, ‘বোর্ড প্রধানের প্রোস্টেট সমস্যা পুরনো। গত বছর বিশ্বকাপের সময়ই লন্ডনে দেখানো হয়েছিল। তখন চিকিৎসকরা বলেছিলেন, চিকিৎসা চলুক। ঔষধ সেবন করুন। তবে একটা পর্যায়ে গিয়ে হয়তো সার্জারি লাগবে এবং সেটা এ বছর জুনেই নির্ধারণ করা হয়েছিল। কাজেই বিসিবি সভাপতি আগে থেকে তার চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করেই অপারেশনের পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে লন্ডন গেছেন।’
সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন
এই সম্পর্কিত
আরও