নেত্রকোনা থেকে ‘শিশুবক্তা’ মাদানী আটক

এনটিভি প্রকাশিত: ০৭ এপ্রিল ২০২১, ১৫:২৫

এবার রাষ্ট্রবিরোধী,উসকানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টার অভিযোগে ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে পরিচিত রফিকুল ইসলাম মাদানীকে নেত্রকোনা থেকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।


র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বিষয়টি নিশ্চিত করে এনটিভি অনলাইনকে জানান,‘আজ বুধবার নেত্রকোনার পূর্বধলা থেকে তাঁকে আটক করা হয় । ’


খন্দকার আল মঈন আরও বলেন,‘রফিকুল ইসলাম মাদানি নানা সময়ে বিভিন্ন বিষয়ে উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়ে থাকেন। তিনি রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন। শুধু তাই নয়,তিনি রাষ্ট্রবিরোধী নানা উসকানিমূলক কথাবার্তা বলেন। এতে জনমনে ভীতির সঞ্চার করেছে বলে আমাদের কাছে অভিযোগ রয়েছে।'


মতিঝিলে মোদিবিরোধী বিক্ষোভ, ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল আটক


ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে রাজধানীর মতিঝিল শাপলা চত্বরে যুব অধিকার পরিষদের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। মিছিলে যুব, ছাত্র অধিকারসহ কয়েকটি সংগঠনের কর্মীরা অংশ নেন। পুলিশ মিছিলের গতিরোধ করতে চাইলে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারগ্যাস ও সাউন্ড গ্রেনেড ছোড়ে। মিছিলকারীরাও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।


বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) দুপুর ১২টায় মতিঝিল শাপলা চত্বরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রায় ৩০ মিনিট ধরে চলা এ সংঘর্ষে উভয়পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হন।


প্রিজনভ্যান থেকে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের লাইভ


ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে রাজধানীর মতিঝিলে বিক্ষোভকালে আটক হয়েছেন ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে পরিচিত মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানি। যুব অধিকার পরিষদের ব্যানারে আয়োজিত ওই বিক্ষোভ থেকে বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) দুপুরে মাওলানা রফিকুলসহ ১১ জনকে আটক করে পুলিশ।


এরপর আটকদের প্রিজনভ্যানে নিয়ে যাওয়া হয়। তাদের মধ্যে নুরুজ্জামান নামের একজনের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে আসেন রফিকুল ইসলাম। ‘মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী সমর্থক’ নামের একটি ফেসবুক গ্রুপে লাইভটি শেয়ার করা হয়। এই গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ৫৬ হাজারের বেশি।


‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলামকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ


রাজধানীর মতিঝিল শাপলাচত্বর এলাকা থেকে বিক্ষোভের সময় আটক ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলামকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) সন্ধ্যায় যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পল্টন থানার ডিউটি অফিসার কাজী আশরাফুল হক।


এর আগে সকালে মতিঝিল এলাকায় বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে যুব অধিকার পরিষদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে।  ওই সময় পুলিশ বিক্ষোভে অংশ নেওয়া রফিকুল ইসলাম ওরফে ‘শিশুবক্তাকে’ আটক করে।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন
এই সম্পর্কিত