ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধের আহ্বান বিশেষজ্ঞদের

ডেইলি স্টার প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০২১, ১৬:৪৪

ভারতে কোভিড-১৯ সংক্রমণ পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় এবং সেখানে শনাক্ত করোনার নতুন ধরনটির প্রবেশ ও ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে প্রতিবেশী এই দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের সীমান্ত বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।


গত মঙ্গলবার কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির এক সভাতেও ভারতে সংক্রমণ পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত সীমান্ত বন্ধ রাখার প্রস্তাব করা হয়েছিল।


এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) সাবেক উপাচার্য ও জাতীয় পরামর্শক কমিটির সদস্য অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘ভারতে সংক্রমণ পরিস্থিতি মারাত্মক হওয়ায় আমরা অবিলম্বে সরকারকে সীমান্ত করে দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলাম।’


‘সীমান্ত যদি পুরোপুরি বন্ধ রাখা সম্ভব নাও হয়, তাহলে অবশ্যই ভারত থেকে আসা ব্যক্তিদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে হবে’, বলেন তিনি।


ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণের যে দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে, তার পেছনে কোভিড-১৯’র নতুন ধরন ‘ডাবল মিউট্যান্ট’ কাজ করছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যে কারণে দেশটি ইতোমধ্যে ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংক্রমণের দেশে পরিণত হয়েছে। এখন ভারতের আগে রয়েছে কেবল যুক্তরাষ্ট্র।


করোনা : ভারতের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধের দাবি বিএনপির


করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে ভারতের সঙ্গে দেশের সবগুলো স্থলবন্দর বন্ধের দাবি জানিয়েছে বিএনপি। শনিবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।


মির্জা ফখরুল বলেন, ‘করোনার ভয়ঙ্কর প্রকোপে পর্যুদস্ত সেবা পরিস্থিতি। ইতোমধ্যে ভারত বিশ্বে সংক্রমণের হারে সবার ঊর্ধ্বে। দেশটিতে সংক্রমণ মারাত্মক, সেখানকার মারাত্মক পরিস্থিতি। আমি ভারতের এ বিষয়টি এ কারণে উল্লেখ করছি যে ভারতের সঙ্গে আমাদের এখনো প্রচুর পরিমাণ ব্যবসায়িক সম্পর্ক এবং স্থলপথে আমাদের নাগরিকদের যাতায়াত আছে। বিশেষ করে মেডিকেল ভিসা বা অন্যান্য কারণে।’


কোভিড: ভারতে এক দিনে শনাক্ত প্রায় সাড়ে ৩ লাখ


করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ ভারতকে নিয়ে যাচ্ছে খাদের কিনারে; সংক্রমণ হু হু করে বাড়তে থাকায় প্রতিদিনই সেখানে শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় নতুন বিশ্ব রেকর্ড হচ্ছে।


ভারত সরকার শনিবার (২৪ এপ্রিল) দেশটিতে রেকর্ড তিন লাখ ৪৬ হাজার ৭৮৬ জন নতুন রোগী শনাক্তের খবর দিয়েছে। এ নিয়ে টানা তৃতীয় দিন ভারতে তিন লাখের বেশি নতুন রোগী শনাক্ত হল।


শনাক্তের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে রেকর্ড দুই হাজার ৬২৪ জন রোগীর মারা গেছেন বলে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।


ভারতের পরিস্থিতিই বলে দেয় করোনা কত ভয়ঙ্কর হতে পারে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা


ভারতে বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আশঙ্কার কথা জানালেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান অ্যাধানম গ্রেব্রেয়াসিয়াস। তিনি বলেন, ভারতে আবারও করোনা সংক্রমণে তিনি উদ্বিগ্ন। ভারতের এই পরিস্থিতিই বিধ্বংসী পূর্বাভাস দিচ্ছে যে ভাইরাস কী করতে পারে। অর্থাৎ ভারতে ক্রমাগত যে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ তা রীতিমতো ভয়ানক আকার নিতে চলেছে বলেই মন্তব্য করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রধান। 


ভারতের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ইমরান খানের টুইট


ভারতের কোভিড-১৯ মহামারির ক্রমবর্ধমান ভয়াবহ পরিস্থিতি নিয়ে সংহতি প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। একইসঙ্গে যারা ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে লড়াই করছেন তাদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন। শনিবার (২৪ এপ্রিল) এক টুইট বার্তায় তিনি এসব কথা বলেন।


পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ এর ভয়ঙ্কর ঢেউয়ের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতের জনগণের প্রতি আমরা সংহতি প্রকাশ করছি। প্রতিবেশি দেশ এবং বিশ্বব্যাপী যারা মহামারিতে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের দ্রুত আরোগ্য কামনায় আমাদের দোয়া রইলো। মানবতার মুখোমুখি এই বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জকে আমাদের একসঙ্গে মোকাবিলা করতে হবে।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন
এই সম্পর্কিত