‘সঠিক পরিকল্পনা না থাকলে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে না’

মানবজমিন প্রকাশিত: ২৮ জুন ২০১৯, ০০:০০

গেল ঈদে দুটি নাটক নির্মাণ করেন অভিনেতা ও নির্মাতা সালাউদ্দিন লাভলু। নাটক দুটি হলো ‘হানিমুন হবে কক্সবাজারে’ ও ‘আবার হবে দেখা’। দুটি নাটকই দর্শকের কাছে বেশ প্রশংসিত হয়েছে। সামনেই ঈদ উল আজহা। সেই ঈদের নাটকেও তাকে দেখা যাবে বলে জানান লাভলু। তিনি বলেন, এই সময়ে অভিনয় ও নির্মাণ দুটোতেই সময় দিচ্ছি। আসছে ঈদের জন্যও পরিকল্পনা করছি। গেল ঈদের নাটকগুলোর জন্য দর্শকের কাছ থেকে দারুণ সাড়া পেয়েছি। সত্যি বলতে, আমরা দর্শকের জন্যই নাটক নির্মাণ করি। যখন তাদের কাছ থেকে সাড়া পাই তখন কাজের প্রতি আগ্রহ বাড়ে। এদিকে এই অভিনেতা বর্তমানে ‘জায়গীর মাস্টার’ শিরোনামের একটি ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন। ধারাবাহিকটি বাংলাভিশনে প্রচার হচ্ছে। দর্শকের মধ্যেও এটি বেশ সাড়া ফেলেছে। নাটকটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এই নাটকে অভিনয় করে আমি বেশ তৃপ্ত। এতে জীবনের কথা বলা হয়েছে। পাশাপাশি মজা করে কিছু বক্তব্য তুলে ধরতে চেষ্টা করেছেন নির্মাতা। দর্শক সবসময় গল্পনির্ভর নাটক পছন্দ করেন। এ নাটকের মাধ্যমে তা আবারও প্রমাণ হয়েছে। টেলিভিশন নাটকের পাশাপাশি তের বছর পর সম্প্রতি ‘সাপলুডু’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয়  করেছেন ‘রঙের মানুষ’খ্যাত এই অভিনেতা। এটি নির্মাণ করেছেন গোলাম সোহরাব দোদুল। ছবিটি প্রসঙ্গে সালাউদ্দিন লাভলু বলেন,   টেলিভিশন নাটকে অভিনয় ও নির্মাণে ব্যস্ত থাকার কারণে অনেক দিন চলচ্চিত্রে অভিনয় করা হয়নি। দোদুলের এই ছবির গল্প ও  চরিত্রে বেশ নতুনত্ব আছে। বলতে পারি, দর্শক আমাকে অন্যভাবে আবিস্কার করবে। তাই এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছি। মাঝে ‘রাত্রির যাত্রি’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্রে এই অভিনেতাকে অতিথি চরিত্রে দেখা গেছে। অভিনয়ের পাশাপাশি লাভলু সর্বশেষ ‘মোল্লা বাড়ির বউ’ চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেন। সম্প্রতি ছোট পর্দার সংগঠন অভিনয় শিল্পী সংঘের নতুন কমিটি নির্বাচিত হয়েছে। এ কমিটির কাছে প্রত্যাশা কি জানতে চাইলে লাভলু বলেন, নতুন কমিটি শিল্পীদের স্বার্থে কাজ করবে এটা বিশ্বাস করি। নাটকের বাজার এখন আগের চেয়ে অনেক বড়। এখানে সঠিক পরিকল্পনা না থাকলে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে না। নতুন কমিটির কাছে আমার প্রত্যাশা, একটি নীতিমালার মধ্যে সবাইকে নিয়ে আসবেন তারা। শিল্পীরা যেন সবাই নিজেদের একটি পরিবারের সদস্য মনে করে। অভিনয়ের পাশাপাশি এই অভিনেতা ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। গেল বছরের শেষের দিকে শপথ গ্রহণ করেন তিনি। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে অনেক কাজও করার কথা ছিল এই অভিনেতার। সেই প্রসঙ্গ মনে করিয়ে দিতে লাভলু বলেন, সংগঠনের দায়িত্ব নিয়েছি গত বছরের শেষের দিকে। জানুয়ারি থেকে কমিটির কাজ শুরু করেছি। কাজের গতি বাড়াতে বেশ কয়েকটি উপকমিটি গঠন হয়েছে। টিভি চ্যানেলগুলোর সঙ্গে বসেছি। শিল্পীদের চুক্তি স্বাক্ষর নিয়েও কাজ হয়েছে। সংগঠনের সদস্যদের স্বপ্নপূরণ ও পরিচালকদের সম্মান পুনরুদ্ধার করতে চাই। তরুণ ও পুরোনো মেধাবী পরিচালকদের জন্য কাজের সুস্থ পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে কাজ করবো। এদিকে পেশাদারিত্বের জায়গা থেকে একজন নাট্য পরিচালকের কোনো রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি নেই। আমি চেষ্টা করবো পরিচালকদের প্রথম শ্রেণির নাগরিকত্বের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি নিশ্চিত করতে। তাহলে কাজের মান আরো বাড়বে। সবার আরো সংগঠিত হওয়ার সুযোগ থাকবে।
সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন
আরও

ফের

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

সাবিলার অপেক্ষা

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

বিরতি ভেঙে

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

আবার বিচারক

২ ঘণ্টা, ৩ মিনিট আগে

অপর্ণার নতুন

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

টানা তিনদিন

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

Traditional Ganga Snan observed in Pabna

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

Ocean Dance Festival begins Nov 22

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

Brad Pitt talks weightlessness on phone call to ISS

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

Minar Magic continues!

২ ঘণ্টা, ৩ মিনিট আগে

Group show explores devotion

২ ঘণ্টা, ৪ মিনিট আগে

‘IT’ stays atop North America box office

২ ঘণ্টা, ৩ মিনিট আগে