সোমবার ঈদুল আজহা সামনে রেখে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্প খাতের পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বিজিএমইএ। ছবি: সংগৃহীত

পোশাক শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করা হয়েছে: বিজিএমইএ

‘মালিকরা যাতে ব্যাংক থেকে তহবিল পেয়ে শ্রমিকদের যথাসময়ে পরিশোধ করতে পারেন, সেজন্য ফেডারেশন, মালিক ও শ্রমিকদের সহযোগিতায় আমরা পদক্ষেপ নিয়েছিলাম।’

শেখ নোমান
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৮:০২ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:১৬
প্রকাশিত: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৮:০২ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:১৬


সোমবার ঈদুল আজহা সামনে রেখে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্প খাতের পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বিজিএমইএ। ছবি: সংগৃহীত

(ইউএনবি) পোশাক শ্রমিকদের উৎসব ভাতা ও জুলাই মাসের বেতন পরিশোধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)। সেই সঙ্গে অনেক সদস্য কারখানা শ্রমিকদের ১০-১৫ দিনের অগ্রিম বেতনও দেওয়া হয়েছে।

২০ আগস্ট, সোমবার ঈদুল আজহা সামনে রেখে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্প খাতের পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান বিজিএমইএ-এর সহ-সভাপতি মঈনুদ্দিন আহমেদ।

মঈনুদ্দিন আহমেদ দাবি করেন, ‘আমরা যতদূর জানি, ঈদুল-আজহা উপলক্ষে প্রায় শতভাগ তৈরি পোশাক শিল্প কারখানার মালিক উৎসব ভাতা পরিশোধ করেছেন। সেই সাথে শতভাগ কারখানার মালিক জুলাই মাসের বেতন দিয়েছেন। রবিবারের হিসাব অনুযায়ী প্রায় ৯০ শতাংশ কারখানা উৎসব উপলক্ষে ছুটি ঘোষণা করেছে এবং বাকিরা সোমবার এ ঘোষণা দেবে।’

বিজিএমইএ-এর সহ-সভাপতি বলেন, ‘বিভিন্ন সংস্থা ও বিজিএমইএ সংকট ব্যবস্থাপনা সেলের তথ্য অনুযায়ী, ঈদ উপলক্ষে বেতন পরিশোধ করা নিয়ে যাতে সমস্য না হয়, সে জন্য বিজিএমইএ মোট ৭০০টি কারাখানাকে গভীরভাবে নজরদারি করেছিল।

বিজিএমইএ সরাসরি হস্তক্ষেপ করে প্রায় ২১টি সমস্যাযুক্ত কারখানার শ্রমিকদের বেতন নিশ্চিত করেছে। মালিকরা যাতে ব্যাংক থেকে তহবিল পেয়ে শ্রমিকদের যথাসময়ে পরিশোধ করতে পারেন, সেজন্য ফেডারেশন, মালিক ও শ্রমিকদের সহযোগিতায় আমরা পদক্ষেপ নিয়েছিলাম।’

শ্রমিকদের ঈদের ছুটি ও আগস্ট মাসের অগ্রিম বেতন পরিশোধের কোনো আইনি বাধ্যবাধকতা ছিল না দাবি করে মঈনুদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘এ বছর কিছু কারখানা বিচারবহির্ভূত কারণে সমস্যায় পড়েছে।’

প্রিয় সংবাদ/শান্ত 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


loading ...