পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

নেতৃত্ব হারাচ্ছেন সরফরাজ!

সরফরাজ অবশ্য নিজে নেতৃত্ব ছাড়তে রাজি নন।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৯ জুলাই ২০১৯, ১২:১৩ আপডেট: ২৯ জুলাই ২০১৯, ১২:১৩
প্রকাশিত: ২৯ জুলাই ২০১৯, ১২:১৩ আপডেট: ২৯ জুলাই ২০১৯, ১২:১৩


পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বিশ্বকাপের পরেই পাকিস্তান ক্রিকেট দলে বৈপ্লবিক রদবদল নিয়ে গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল দেশটির ক্রিকেট মহলে। শোনা যাচ্ছিল যে, পিসিবিকে লাল ও সাদা বলের ক্রিকেটে আলাদা আলাদা ক্যাপ্টেন ও হেড কোচ নিয়োগের পরামর্শ দিয়েছেন ক্রিকেট কমিটির সদস্য ওয়াসিম আকরাম। এবার পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমের খবর, আকরামের পরামর্শ মতোই টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি খোয়াতে চলেছেন সরফরাজ আহমেদ।

পাকিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেল জিও নিউজের খবর অনুযায়ী সরফরাজকে টেস্ট ক্যাপ্টেনের পদ থেকে ছেঁটে ফেলতে চলেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। আগামী ২ আগস্ট লাহোরে ক্রিকেট কমিটির বৈঠকেই সিলমোহর পড়তে পারে সরফরাজকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তে। ওই সংবাদে এও উল্লেখ করা হয় যে, সরফরাজের পরিবর্তে শান মাসুদকে নিযুক্ত করা হতে পারে পাকিস্তানের নতুন টেস্ট অধিনায়কের পদে।

মূলত আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের কথা ভেবেই টেস্ট ক্রিকেটকে বাড়তি গুরুত্ব দিতে চাইছে পিসিবি। অন্যদিকে আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠিত হবে টি-২০ বিশ্বকাপ। সেদিক থেকে সীমিত ওভারের ফরম্যাটকেও অবহেলা করতে রাজি নয় পিসিবি।

সরফরাজের নেতৃত্বে পাকিস্তান দল ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে তুলনামূলক ভালো ফল করলেও টেস্টে পুরোপুরি ব্যর্থ। সরফরাজ মোট ১৩টি টেস্টে পাকিস্তান দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে। এর মধ্যে মাত্র ৪টি ম্যাচ জিতেছে পাকিস্তান। হেরেছে ৮টি টেস্টে। বাকি একটি ম্যাচ ড্র হয়েছে। আইসিসি টেস্ট ব়্যাংকিংয়ে পাকিস্তান এই মুহূর্তে ৭ নম্বরে রয়েছে।

শান মাসুদের হাতে টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি তুলে দিতে পিসিবির বেশিরভাগ কর্তাই আগ্রহী। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে পিসিবি’র থিঙ্ক ট্যাঙ্ক। সরফরাজ অবশ্য নিজে নেতৃত্ব ছাড়তে রাজি নন।বিশ্বকাপ থেকে ফিরেই সরফরাজ জানিয়েছিলেন যে তিনি ক্যাপ্টেন্সি ছাড়ছেন না।

তখন সরফরাজ বলেছিলেন, ‘আমি কখনই বলছি না যে, আমি নেতৃত্ব ছাড়তে অস্বীকার করছ... আমি শুধু এটাই বলতে চাই যে, ক্যাপ্টেন্সির সিদ্ধান্তটা সম্পূর্ণ পিসিবি’র উপর নির্ভর করে। ঠিক যেমনটা তাদের ইচ্ছাতেই আমার হাতে ক্যাপ্টেন্সি তুলে দেওয়া হয়েছিল। আমি নিশ্চিত পিসিবি যে সিদ্ধান্তই নিক না কেন, সেটা পাকিস্তান ক্রিকেটের ভালোর জন্যই নেবে। আপাতত আমি নিজে থেকে ক্যাপ্টেন্সি ছাড়ার কথা ভাবছি না।’

প্রিয় খেলা/আশরাফ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


loading ...