রবিবার রাজধানীতে কালবৈশাখী ঝড়, বৃষ্টিতে বিপাকে নগরবাসী। ছবি: সংগৃহীত

কালবৈশাখী ঝড়, বৃষ্টিতে বিঘ্নিত জনজীবন

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় সকাল সাড়ে ৮টায় আঘাত হানা কালবৈশাখীর বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৭৬ কিলোমিটার।

ইতি আফরোজ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৯ এপ্রিল ২০১৮, ১৬:৪৫ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৮
প্রকাশিত: ২৯ এপ্রিল ২০১৮, ১৬:৪৫ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৮


রবিবার রাজধানীতে কালবৈশাখী ঝড়, বৃষ্টিতে বিপাকে নগরবাসী। ছবি: সংগৃহীত

(ইউএনবি) রাজধানীতে কালবৈশাখী ঝড়ের সঙ্গে ভারী বর্ষণ, বজ্রপাত এবং বৃষ্টিতে বিঘ্নিত হয়েছে রাজধানীবাসীর স্বাভাবিক জীবনযাত্রা।

২৯ এপ্রিল, রবিবার সকাল ৬টা থেকে ৯টা পর্যন্ত তিন ঘণ্টায় ৫৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর

আবহাওয়া অধিদফতরের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সূত্র জানায়, তাদের দুটো পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র থেকে ঝড়ের গতিবেগ নির্ণয় করা হয়েছে। এর মধ্যে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় সকাল সাড়ে ৮টায় আঘাত হানা কালবৈশাখীর বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৭৬ কিলোমিটার।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আরেক পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, সকালে ওই সময় বাতাসের গতিবেগ ছিল ৬৩ কিলোমিটার।

কালবৈশাখীর পর রাজধানী শান্ত হয়ে এসেছে। অবশ্য সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা ছিল। ধীরে ধীরে এ মেঘ আরও ঘনীভূত হয়। চারপাশ গ্রাস করে রাতের অন্ধকার। এরপর দমকা হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বৃষ্টি। বৃষ্টি হলে চিরচেনা রূপ নেয় এই জনবহুল নগরী, দুর্ভাগে পোহাতে হয় নগরবাসীর। বৃষ্টির অনেক পরেও রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে পানি জমে থাকতে দেখা যায়।

অবশ্য আজ বুদ্ধপূর্ণিমা উপলক্ষে সরকারি ছুটি। তারপরও মানুষের ব্যস্ততার কমতি নেই। বিশেষ করে প্রতিদিনের আয়ের ওপর যাদের জীবন চলে তারা ঠিকই রাস্তায় নেমেছেন। রাস্তায় জমে থাকা নোংরা পানি মাড়িয়েই তাদের চলাফেরা করতে দেখা গেছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া ও বিজলীসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। সেইসাথে কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ এবং বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

প্রিয় সংবাদ/শান্ত 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


loading ...